ইউএনও ওয়াহিদার বাবাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় আনা হলো

ইউএনও ওয়াহিদার বাবাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় আনা হলো

ঢাকাদিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমের বাবা মুক্তিযোদ্ধা ওমর আলী শেখকে (৬৫) উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে আনা হয়েছে।

রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার দিকে তাকে হাসপাতালে আনা হয় বলে জানিয়েছেন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালের যুগ্ম পরিচালক অধ্যাপক ডা. বদরুল আলম।

ওমর আলী শেখ এতদিন রংপুর মেডিক্যাল কলেজ (রমেক) হাসপাতাল চিকিৎসাধীন ছিলেন। গত শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাতে সড়কপথে তাকে নিয়ে রাজধানীর পথে রওনা হয় একটি অ্যাম্বুলেন্স।

সেখানকার চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ওমর আলী শেখের কোমর থেকে নিচের অংশ পুরোটাই অবশ। কথা বলতে ও খেতে পারলেও তিনি চলাচল করতে পারছেন না।

তার আগে থেকে ডায়াবেটিস ছিল। ঘটনার রাতে তিনি ঘাড়ে আঘাতপ্রাপ্ত হন। এতে স্পাইনাল কর্ড ইনজুরি হয়। সাধারণত এ ধরনের জটিলতায় হাত-পা অবশ হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে তার দুই হাত কিছুটা সচল থাকলেও নাভির নিচ থেকে পুরো নিচের অংশ অবশ হয়ে পড়েছে। এ ধরনের সমস্যা থেকে সেরে উঠতে দুই থেকে তিন মাস পর্যন্ত সময় লাগতে পারে।

গত বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাতে ইউএনও ওয়াহিদার সরকারি বাসভবনের ভেন্টিলেটর ভেঙে বাসায় ঢুকে ওয়াহিদা ও তার বাবার ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। ইউএনওর মাথায় গুরুতর আঘাত ও তার বাবাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করা হয়।

পরে ইউএনওকে প্রথমে রমেক হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। এরপর তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারে করে তাকে রাজধানীতে আনা হয়। তিনি বর্তমানে রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।