৬.৮ শতাংশ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হবে: এডিবি

৬.৮ শতাংশ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হবে: এডিবি

ঢাকা: করোনা সংকট কাটিয়ে দ্রুত ঘুরে দাঁড়ানো বাংলাদেশের বাংলাদেশের জিডিপি ২০২০-২০২১ অর্থবছরে ৬ দশমিক ৮ শতাংশ হবে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। তবে সরকার মনে করছে প্রবৃদ্ধি হতে পারে ৬ দশমিক ২ শতাংশ।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, কার্যকর উৎপাদন সক্ষমতা ও রপ্তানি সচল থাকায় বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ধীরে ধীরে পুনরুদ্ধার হচ্ছে। বিচক্ষণ সামষ্টিক অর্থনৈতিক ব্যবস্থাপনা ও সরকারের প্রণোদনা প্যাকেজ দ্রুত বাস্তবায়নের ফলে অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার ত্বরান্বিত হয়েছে। প্রবৃদ্ধি কমে যাওয়ার মূল ঝুঁকি তৈরি হয়েছিল, বাংলাদেশে এবং রপ্তানি গন্তব্যে করোনা মহামারির দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব।

এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ বলেন, মহামারির প্রভাব থেকে বাংলাদেশের অর্থনীতি বেরিয়ে আসছে। স্বাস্থ্য ও মহামারি ব্যবস্থাপনায় উল্লেখযোগ্য চাপ থাকা সত্ত্বেও সরকার গরিব ও দুস্থদের জন্য মৌলিক সেবা নিশ্চিত করে উপযুক্ত অর্থনৈতিক উদ্দীপনা এবং সামাজিক সুরক্ষা ব্যবস্থাসহ অর্থনীতিকে সুসংহত করেছে।

তিনি বলেন, রপ্তানি ও রেমিট্যান্সের পাশাপাশি অর্থনৈতিক উদ্দীপনা ও সামাজিক সুরক্ষায় বৈদেশিক তহবিল নিশ্চিত করাসহ সরকারের সামষ্টিক অর্থনৈতিক ব্যবস্থাপনার ফলেই এই পুনরুদ্ধার সম্ভব হয়েছে। প্রথম দিকেই ভ্যাকসিন হাতে পেলে এবং মহামারি ব্যবস্থাপনার উপর আরও জোর দিলে তা এই অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে আরও সহায়ক হবে।

এডিবি সরকারকে আরও সহায়তা দেওয়ার জন্য কাজ করছে বলেও জানান তিনি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশে করোনা মোকাবিলা ও দেশের অর্থনীতি দ্রুত পুনরুদ্ধারের জন্য এডিবি ইতোমধ্যে ৬শ মিলিয়ন ডলার ঋণ এবং চার দশমিক চার মিলিয়ন ডলার অনুদান দিয়েছে। ২০২১ থেকে ২০২৩ সালে বাংলাদেশকে আরও পাঁচ দশমিক নয় বিলিয়ন ডলার দেবে এডিবি। একই সঙ্গে তাৎক্ষণিক সহায়তা প্রোগ্রামের জন্য রয়েছে পাঁচ দশমিক দুই বিলিয়ন ডলার।