শ্রমিকদের শ্রম মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি পালন

শ্রমিকদের শ্রম মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি পালন

ঢাকা: অর্জিত ছুটির টাকাসহ সব আইনানুগ পাওনা অবিলম্বে পরিশোধের দাবিতে বিক্ষোভ ও শ্রম মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি পালন করেছেন শ্রমিকরা।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর প্রেসক্লাবের সামনে রাজধানীর মালিবাগের ড্রাগন ইম্পেরিয়াল সোয়েটার কারখানার শ্রমিক কর্মচারীদের এই বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেন।

এ সময় সচিবালয়ের সামনেও তারা বিক্ষোভ করে এবং কিছুক্ষণের জন্য অবস্থান করেন। সচিবালয়ে অবস্থানের সময় পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের সামান্য হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। তবে, এতে হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

কারখানর শ্রমিক মো. কুদ্দুসের সমন্বয়ে কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন গার্মেন্টস ট্রেড ইউনিয়নের নেতাকর্মীরাসহ অন্যান্য শ্রমিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা। কথা বলেও কারাখানটির বিভিন্ন শ্রমিকও।

বক্তারা বলেন, আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দপ্তরে ধর্না দিয়েছি। আমরা একটা আইনানুগ সমাধান চেয়েছি কিন্তু পায়নি। তাই বৃহস্পতিবার বাধ্য হয়ে পথে নেমেছি এই আন্দোলনে। আমরা আমাদের বেতন চাই, আমাদের চাকরি ফেরত চাই। চাকরির শুরু থেকে প্রতিমাসে বেতনের একটি নির্দিষ্ট অংশ কেটে নিয়ে চাকরি শেষে দেওয়ার কথা, অথচ এখন সেটাও দেওয়া হচ্ছে না। আমাদের পাওনা আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এই আন্দোলন চলবে। আমরা সরকারকে বলবো-আপনার মালিককে ধরেন। আমরা সুখে নেই, আমাদের পরিবার ভালো নেই। অনেক বয়স্ক শ্রমিকও এই সমস্যার ভুক্তভোগী।

শ্রমিক নেতারা বলেন, রপ্তানি সেক্টরে সবথেকে এগিয়ে আছে গার্মেন্টস পন্য। অথচ এই সেক্টরের শ্রমিকরাই সব থেকে অবহেলিত। আমরা ৫ মাস ধরে বেতন পাই না। আমরা বিভিন্ন সময় শ্রম ভবনে আমাদের দাবির কথা বলেছি। অথচ এখনও কোনো সমাধান পায়নি। আমরা সমাধান চাই। আজকের পরেও যদি কোনো সমাধান না আসে তবে, আমরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবো। আশা করি, আর কেউ না বুঝলেও প্রধানমন্ত্রী আমাদের কষ্ট বুঝবেন।

কর্মসূচি শেষে শ্রমিকদের একটি দল শ্রম মন্ত্রণালয়ে স্মারকলিপি জমা দেন। তারা অবিলম্বে এই সমস্যার সমাধানের জন্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।