সেমেদোকে বেচে দিল বার্সা

সেমেদোকে বেচে দিল বার্সা

বার্সেলোনার পুরো খোলনলচে বদলে যেতে শুরু করেছে ব্যর্থ এক মৌসুম শেষে সাবেক কোচ কিকে সেতিয়েনকে দিয়ে শুরু, একে একে দলেরবুড়োখেলোয়াড়দের বিদায় করতে শুরু করেছে কাতালান জায়ান্টরা

এরইমধ্যে ইভান রাকিতিচ আর্তুরো ভিদাল বিদায় নিয়েছেন। তালিকায় সর্বশেষ সংযোজন এবার নেলসন সেমেদো

ক্যাম্প ন্যুয়ে ৩ বছর কাটিয়ে বিদায় নিয়েছেন সেমেদো। পর্তুগিজ রাইট- ব্যাককে ৪০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে কিনেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স। এর মধ্যে ৩০ মিলিয়ন নগদ আর বাকি ১০ মিলিয়ন পরবর্তীতে পরিশোধযোগ্য।

কিন্তু উলভসের সঙ্গে এই সওদায় বার্সার তেমন একটা লাভ হলো না। কারণ ২০১৭ সালে ৩০ মিলিয়ন ইউরোয় পর্তুগিজ ক্লাব বেনফিকা থেকে সেমেদোকে কিনেছিল বার্সা। সেই সঙ্গে বাড়তি যোগ হয়েছিল আরও ৫ মিলিয়ন ইউরো।

বার্সার জার্সিতে ১২৪ ম্যাচে মাঠে নামলেও কখনোই দলে অপরিহার্য ছিলেন না সেমেদো। কাতালান জায়ান্টদের জার্সিতে ২ গোল করা এই ডিফেন্ডার অবশ্য ২টি লা লিগা, একটি কোপা দেল রে এবং দুটি সুপারকোপা দে এস্পানা জেতার স্বাদ পেয়েছেন।

বায়ার্ন মিউনিখের কাছে চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে ৮-২ গোলে হেরে বিদায় নেওয়ার পর বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়কে বেচে দেওয়ার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছিল বার্সা। এর মধ্যে রাকিতিচকে সেভিয়ায় এবং ভিদালকে ইন্টার মিলানের কাছে বেচেও দিয়েছে।

কিন্তু সেমেদো ছিলেন বার্সা প্রেসিডেন্ট হোসে মারিয়া বার্তোমেউর ‘বিক্রির জন্য নয়’ খেলোয়াড়দের তালিকায়। কিন্তু আর্থিক চাপের কথা মাথা রেখে আর উলভসের প্রস্তাব ভালো হওয়ায় রাজি হয়ে যান তিনি।

এই গ্রীষ্মে খেলোয়াড় বেচে খুব বেশি আয় হয়নি বার্সার। এর আগে জুভেন্টাসের কাছে ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার আর্থার মেলোকে বেচে আয় হয়েছিল ৭২ মিলিয়ন ইউরো। তবে সেই চুক্তির অংশ হিসেবে তুরিন ছেড়ে ক্যাম্প ন্যুয়ে এসেছেন মিরালেম পিয়ানিচ। সেই হিসাবে সেমেদোকে বেচে এই গ্রীষ্মে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ লাভজনক সওদা করল বার্সা।

এদিকে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’ জানিয়েছে, সেমেদোকে বেচে পাওয়া অর্থ দিয়ে ইন্টার মিলান থেকে লওতারো মার্তিনেসকে কিনতে পারে বার্সা। তবে এই আয় দিয়ে করোনায় আর্থিক সংকটে পড়া বার্সার বোর্ড ক্লাবের খেলোয়াড় ও কর্মীদের বেতন-ভাতা পরিশোধ করবে এমনটাও শোনা যাচ্ছে।

সেমেদো চলে যাওয়ায় বার্সার স্কোয়াডে রাইট-ব্যাক হিসেবে থেকে গেলেন শুধু সার্জিও রবের্তো। ২০১৬/১৭ মৌসুমেও সেমেদো আসার আগ পর্যন্ত তিনিই একা রাইট-ব্যাক পজিশন সামলেছেন।

এদিকে লুইস সুয়ারেসকেও বিদায় করে দেওয়ার সব ব্যবস্থা পাকা করে রেখেছে বার্সা। উরুগুইয়ান স্ট্রাইকারের সঙ্গে এরইমধ্যে চুক্তি বাতিল করা হয়েছে। তার নতুন ঠিকানা হিসেবে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের নাম শোনা যাচ্ছে।

শুধু খেলোয়াড় বেচা নিয়েই ব্যস্ত নয় বার্সা। নতুন কোচ রোনাল্ড কোম্যানের ইচ্ছা অনুযায়ী আয়াক্সের ডাচ ডিফেন্ডার সার্জিনো দেস্তকে কেনার চেষ্টা চলছে। তবে এক্ষেত্রে তাদের প্রধান বাধা বায়ার্ন মিউনিখ। ফলে বিকল্প হিসেবে আর্সেনালের হেক্টর বেয়েরিনের কথাও ভাবা হচ্ছে।