তাপসের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সিটি করপোরেশনের সক্ষমতা বাড়ানোর প্রস্তাব

তাপসের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সিটি করপোরেশনের সক্ষমতা বাড়ানোর প্রস্তাব

ঢাকা: ঢাকা মহানগরীতে হওয়া বিভিন্ন ধরনের দুর্যোগ মোকাবিলা এবং ব্যবস্থাপনায় সিটি করপোরেশনের সক্ষমতা বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন যৌথভাবে স্ব স্ব এলাকার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় কাজ করতে পারে বলেও মত দেন ঢাকা দক্ষিণের মেয়র।

মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক গোল টেবিল বৈঠকে অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন তাপস।

আগামী ১৩ অক্টোবর আসন্ন আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস-২০২০ উপলক্ষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় দৈনিক কালের কণ্ঠের যৌথ উদ্যোগে এ গোল টেবিল বৈঠক আয়োজিত হয়েছে।

বৈঠকে অনলাইন প্ল্যাটফর্মে যুক্ত হয়ে ডিএসসিসি মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, শহর বা নগরের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা পুরো দেশের জন্যও গুরুত্বপূর্ণ। সিটি করপোরেশনের আইন অনুযায়ী, নগরের জননিরাপত্তা এবং অগ্নিনিরাপত্তা নিয়ে আমাদের কাজ করার এখতিয়ার রয়েছে। কিন্তু এসব দায়িত্ব পালনের জন্য সিটি করপোরেশনকে সেভাবে সক্ষমতা অর্জন করতে দেওয়া হয়নি। অথচ চাইলে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন যৌথভাবে সক্ষমতা বাড়িয়ে স্ব স্ব এলাকায় কাজ করতে পারে। আমরা এ বিষয়ে কাজ করতে চাই।

সিটি করপোরেশনের সক্ষমতা বাড়াতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহ্বান জানান তাপস।

দক্ষিণের মেয়র আরও বলেন, একটা দুর্যোগ হয়ে গেলে দেখা যায়, একজন আরেকজনের ওপর দায়িত্ব চাপিয়ে দিয়ে সময়ক্ষেপণ করতে চায়। কিন্তু দায়িত্ব নিয়ে কাজ করার লোক কম। কিন্তু আমরা কাজ করতে চাই। দুর্যোগ মোকাবিলার বড় বিষয় হচ্ছে, দুর্যোগ নিয়ে প্রস্তুতি থাকতে হবে, ড্রিলিং (অনুশীলন) করতে হবে। ১০ বছরেও দুর্যোগ না হতে পারে, কিন্তু হলে সে বিষয়ে প্রস্তুত থাকতে হবে।

দৈনিক কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলনের সঞ্চালনায় এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমানের সভাপতিত্বে গোলটেবিল বৈঠকে আরও বক্তব্য দেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম ও এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা।