গার্মেন্টকর্মীকে গণধর্ষণ মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন

গার্মেন্টকর্মীকে গণধর্ষণ মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন

 

রাজধানীর আদাবরে এক গার্মেন্টকর্মীকে গণধর্ষণের মামলায় দুজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তারা হলেন, সজীব ঢালী এবং আবু হাসান ওরফে সাঈদ। আজ রবিবার ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৫ এর বিচারক সামছুন্নাহার এ রায় ঘোষণা করেন।

একই সঙ্গে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে তাদের আরো ৬ মাস কারাদণ্ড দেওয়া হয়। অপরদিকে পলাতক দুই আসামি আকাশ ওরফে মোসলেম এবং আনোয়ার বয়তীর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত তাদের খালাস দেন।

মামলার সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২০ জানুয়ারি গার্মেন্টসকর্মী ওই তরুণী রাত সাড়ে ৮টার দিকে অফিস শেষে বাসায় ফিরছিলেন। আদাবর থানাধীন শ্যামলী হাউজিং প্রকল্পের পানির পাম্পের সামনে পৌঁছালে সজিব, আবু হাসানসহ অজ্ঞাতনামা দুইজন ভিকটিমের গতিরোধ করে টেনে হিঁচড়ে ফাঁকা মাঠে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় পরদিন ভিকটিমের মা আদাবর থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আলী আসগর স্বপন জানান, বিচারক দুইজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং দুই জনকে খালাস দিয়েছেন। চারজনেরই যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিলে রাষ্ট্রপক্ষ পুরাপুরি সন্তুষ্ট হতো। তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী বলেন, কোনো সাক্ষী আসামিদের নাম বলেনি বা সনাক্ত করেনি। শুধুমাত্র স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির ভিত্তিতে তাদের সাজা দেয়া হয়েছে। এ রায়ে আমরা সংক্ষুদ্ধ।