রেলের শীর্ষ পদে রদবদল ও অবসরের প্রজ্ঞাপন জারি

রেলের শীর্ষ পদে রদবদল ও অবসরের প্রজ্ঞাপন জারি

বাংলাদেশ রেলওয়ের শীর্ষ কয়েকটি পদে রদবদল ও একটি শীর্ষ পদের কর্মকর্তার অবসরের প্রজ্ঞাপন জারি করেছে রেলওয়ে। এখানে জনস্বার্থে এবং বিধি অনুযায়ী অবসরের পৃথকভাবে প্রজ্ঞাপন দুটি দেয়া হয়েছে।

আজ বুধবার রেলওয়ের জনপ্রশাসন শাখার উপ-সচিব মো. আবদুর রহিম স্বাক্ষরিত একটি আদেশে জানা গেছে।

এর আগে আরেকটি আদেশে রেলওয়ের অতিরিক্ত মহা-পরিচালক (অপারেশন) মিয়া জাহান ২৯ নভেম্বর অবসর জনিত বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে রেলওয়ে। এখানে তিনি (মিয়া জাহান) আবারও চুক্তি ভিত্তিক নিয়োগের জন্য ব্যাপক লবিং-তদবির করছেন বলে রেল অঙ্গনে গুঞ্জন রয়েছে।

তার বিরুদ্ধে দুদকে রয়েছে অনিয়ম, আত্মসাতসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। এর আগে সম্প্রতি অবসরে যাওয়া রেলওয়ের শীর্ষ কয়েকটি পদের কর্মকর্তারা অবসরে গেলেও, তাদেরকে কোন চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়নি রেলওয়ে।

রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, পূর্বাঞ্চল রেলওয়ের চারটি শীর্ষ পদে রদবদলের মধ্যে রয়েছেন রেলওয়ে বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (ঢাকা) এসএম সালাউদ্দিনকে পূর্বাঞ্চলের চীফ অপারেটিং সুপারিটেনডেন্ট (সিওপিএস), পূর্বাঞ্চলের অতিরিক্ত চীফ অপারেটিং সুপারিটেনডেন্ট (এডি.সিওপিএস) সুজিত কুমার বিশ্বাসকে প্রধান সংস্থাপন কর্মকর্তা (সিপিও) পশ্চিমাঞ্চল, রেলওয়ে বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (চট্টগ্রাম) সাদেকুর রহমানকে রেলওয়ে বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (ঢাকা) এবং অতিরিক্ত সিএসটি (পূর্ব) তারেক মো. সামস তুষারকে রেলওয়ে বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (চট্টগ্রাম) হিসেবে চলতি দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, গত ২২ অক্টোবর রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) মিয়া জাহানের অবসর জনিত বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এতে তিনি ২৯ নভেম্বর থেকে সরকারি বিধি মোতাবেক অবসরে যাবেন। আর ৩০ নভেম্বর থেকে এক বছরের অবসর উত্তর  ছুটি (পিআরএল), নগদায়ন ছুটিসহ নানা সুবিধা মনজুর করা হয়েছে।

তবে তিনি আবারও মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়ে নানা লবিং-তদবির করছেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে নিশ্চিত করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অনিয়ম, টাকা আত্মসাতসহ নানা বিষয়ে দুদকে অভিযোগ দিয়েছেন জসিম উদ্দিন নামের এক ভুক্তভোগী।