করোনা ভ্যাকসিনের জরুরি প্রয়োগের অনুমোদন চেয়েছে ফাইজার

করোনা ভ্যাকসিনের জরুরি প্রয়োগের অনুমোদন চেয়েছে ফাইজার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ট্রায়ালে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি সফলতা পাওয়া করোনা ভ্যাকসিনের জরুরি প্রয়োগের অনুমোদন পেতে যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনের (এফডিএ) কাছে আবেদন করছে ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ফাইজার ও তাদের সহযোগী প্রতিষ্ঠান জার্মানির বায়োএনটেক। এটা করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। শুক্রবার (২০ নভেম্বর) এ আবেদন করেছে প্রতিষ্ঠান দু’টি। খবর বিবিসি এবং সিএনএনের।চূড়ান্ত ট্রায়ালে প্রমাণিত হয়, এ ভ্যাকসিন করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ৯৫ শতাংশ কার্যকর। এখন এফডিএ সিদ্ধান্ত দেবে এ ভ্যাকসিন প্রয়োগ করার জন্য নিরাপদ কিনা। তবে এটা স্পষ্ট না যে তথ্য-উপাত্ত যাচাই-বাছাই করে সিদ্ধান্ত জানাতে এফডিএ কতদিন সময় নেবে।
মার্কিন সরকার আশা করছে, ভ্যাকসিনটি প্রয়োগের চূড়ান্ত অনুমোদন পেতে ডিসেম্বর মাসের প্রথমার্ধ পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। একটি ট্রায়ালে দেখা যায়, ৬৫ বছরের বেশি বয়সীদের ওপর এ ভ্যাকসিন ৯৪ শতাংশ কাজ করেছে। ব্রিটেন অলরেডি এ ভ্যাকসিনের ৪ কোটি ডোজ প্রি-অর্ডার করেছে এবং বছরের শেষের দিকে অন্তত ১ কোটি ডোজ পাওয়ার আশা করছে। জুন মাসের পর দু’দিন আগে যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় একদিনে মৃত্যু ২ হাজার ছাড়ানোয় নতুন করে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে এবং ভ্যাকসিনটি প্রয়োগের বিষয়টি জোরালোভাবে সামনে এসেছে। ফাইজার ছাড়াও আরেক মার্কিন কোম্পানি মর্ডানা এবং রাশিয়ার স্পুটনিক ৯০ থেকে ৯৫ শতাংশ কার্যকর ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের দাবি জানিয়ে আসছে।