আইপিএল বন্ধ, সাকিব-মোস্তাফিজকে ফেরাতে ‘বিশেষ ব্যবস্থা’- মানবতারকণ্ঠ

আইপিএল বন্ধ, সাকিব-মোস্তাফিজকে ফেরাতে ‘বিশেষ ব্যবস্থা’- মানবতারকণ্ঠ

মানবতারকন্ঠ রিপোর্ট:
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ‘নিশ্ছিদ্র’ জৈব সুরক্ষা বলয় ভেঙে ঢুকে পড়েছে করোনাভাইরাস। আর তাতেই ‘অনির্দিষ্টকালের জন্য’ আইপিএল স্থগিত করতে বাধ্য হয় ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)। আইপিএল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আগেভাগে দেশে ফিরতে হচ্ছে সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমানকে। ভারতের সঙ্গে বর্ডার বন্ধ থাকায় ‘বিশেষ ব্যবস্থায়’ ফিরতে হবে তাদের। এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী।

সাকিব এখন আছেন আহমেদাবাদে। আর মোস্তাফিজ স্ত্রীসহ আছেন দিল্লিতে। পূর্বসূচি অনুযায়ী সাকিব-মোস্তাফিজের ১৮ মে ঢাকায় ফিরে রিপোর্ট করার কথা। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে দ্রুত দুই ক্রিকেটারকে ফেরানোর ভাবনা বাংলাদেশ ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার। এ ব্যাপারে বিসিবির প্রধান নির্বাহী মানবতার কন্ঠকে, ‘আমরা অতি দ্রুত সাকিব-মোস্তাফিজকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি। যেহেতু সব কিছু বন্ধ, আমাদের বিশেষ ব্যবস্থার মাধ্যমে তাদের ফিরিয়ে আনতে হবে। সিভিল অ্যাভিয়েশন নতুন কিছু প্রটোকলের কথা বলেছে আমাদের। আশা করি, অতি দ্রুত আমরা কিছু একটা সিদ্ধান্ত নিতে পারবো।’

সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী, অতি ঝুঁকিপূর্ণ তালিকায় থাকা ভারত থেকে কোনও যাত্রী বাংলাদেশে আসতে পারবেন না। আর আসলে তাদের বাধ্যতামূলত ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এ ব্যাপারে সোমবার প্রধান নির্বাহী বলেছিলেন, ‘তাদের কি নির্দেশনা অনুযায়ী ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন করতে হবে নাকি তিন দিনের কোয়ারেন্টিনেই চলবে? এ ব্যাপারে আমরা সরকারের নির্দেশনা জানতে চেয়েছি। যেহেতু আইপিএলে সাকিব-মোস্তাফিজ এবং জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা (শ্রীলঙ্কায়) জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যেই আছেন, তাদের ক্ষেত্রেও ১৪ দিনের নিয়ম প্রযোজ্য কিনা, আমরা তা জানতে চেয়েছি। সরকার যেভাবে বলবে সেভাবেই আমরা অগ্রসর হবো।’

তবে আইপিএলের জৈব সুরক্ষা বলয় ভেঙে যাওয়ার পর সাকিব-মোস্তাফিজের কোয়ারেন্টিনের ব্যাপারে নিশ্চিতভাবেই কঠোর হবে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এ ব্যাপারে বিসিবি তাকিয়ে আছে সরকারের সিদ্ধান্তের দিকে