স্পিডবোট দুর্ঘটনা কারণ জানে না চালক:শাহ আলম – মানবতারকণ্ঠ

স্পিডবোট দুর্ঘটনা কারণ জানে না চালক:শাহ আলম – মানবতারকণ্ঠ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট:
ঢাকা: মাদারীপুর শিবচর উপজেলার বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌ-রুটের কাঁঠালবাড়ী ঘাট সংলগ্ন এলাকায় স্পিডবোট দুর্ঘটনায় আহত চালক শাহ আলম (৩৮) ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মঙ্গলবার (৪ মে) ভোরে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার স্বজনরা।
বর্তমানে শাহ আলম হাসপাতালের ১০১ নম্বর ওয়ার্ডে আছেন।
দুর্ঘটনায় মাথায ও হাতে আঘাত পেয়েছেন তিনি।

আঘাতের স্থানগুলো ব্যান্ডেজ করা হয়েছে।
স্পিডবোট চালক শাহ আলমের সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, ২১ বছর ধরে তিনি স্পিডবোট চালান।

কোনোদিন কোনো দুর্ঘটনা ঘটেনি, কিন্তু সেদিন দুর্ঘটনা কেন হল তিনি তা নিজেও জানেন না। দুর্ঘটনার পরে কিভাবে উদ্ধার হল সেটাও তিনি জানেন না।
পড়ে একপর্যায়ে মাদারীপুর শিবচরে একটি হাসপাতালে তার জ্ঞান ফেরে।
ঢামেকে শাহ আলমের পাশে থাকা তার মা আলেয়া বেগম জানান, তার দুই মেয়ে ও একমাত্র ছেলে শাহ আলম। তাদের বাবার নাম আবুল কালাম আজাদ। বাড়ি বরিশাল আগৈলঝাড়া হলেও বর্তমানে তিনি (শাহ আলমের মা) ফতুল্লা নারায়ণগঞ্জ এলাকায় থাকেন। ছেলে শাহ আলমের সঙ্গে তাদের তেমন যোগাযোগ হতো না।

তিনি আরও জানান, তার ছেলে শাহ আলম বিবাহিত। তার দুই সন্তান আছে। স্ত্রীর সঙ্গে তেমন যোগাযোগ নেই। কারণ ছেলে কখন কোথায় থাকে কেউ বলতে পারেন না। তবে এতটুকু জানি সে স্পিডবোট চালাতো।

তিনি জানান, কয়েকজনের ফোনের মাধ্যম জানতে পারি শাহ আলম মাদারিপুর শিবচরে একটি হাসপাতলে আছে। পরে সেখানে গিয়ে আহত অবস্থায় তাকে দেখতে পাই। গতকাল রাতে আগারগাঁও নিউরোসাইন্স হাসপাতাল তাকে নেওয়া হয়। সেখানে ভর্তি না নিলে পরে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতাল আনা হয়। বর্তমানে সে ঢামেকে চিকিৎসাধীন।

ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া জানান, স্পিডবোট চালক শাহ আলম ঢামেকে চিকিৎসাধীন।