বাকেরগঞ্জে অসহায় দরিদ্র প্রতিবন্ধী রাশেদাকে দেখার কেউ নেই – মানবতারকণ্ঠ

বাকেরগঞ্জে অসহায় দরিদ্র প্রতিবন্ধী রাশেদাকে দেখার কেউ নেই – মানবতারকণ্ঠ

বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি:
দূর্গাপাশা: অসহায় দরিদ্র প্রতিবন্ধী স্বামীহারা রাশেদা বেগম দুই সন্তানকে নিয়ে চলেনা তার সংসারের চাকা। নদীর এপার ভাঙ্গে ওপার গড়ে এইতো নদীর খেলা এই প্রতিবন্ধীর জীবনটা কাঁচের টুকরোর মতো ১ চাল ঘরটি কয়েকবার নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। বাকেরগঞ্জের ৫ নং দুর্গাপাশা ইউনিয়নের লক্ষ্মীপরধন গ্রামের বাসিন্দা স্বামী মৃত্যু দেলোয়ার হোসেন বিগত ৩০ বছর আগে মারা যায় স্ত্রী প্রতিবন্ধী রাশেদা বেগম।

দুই সন্তান আবুল আর বাবুল কে নিয়ে মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়ায় কোনদিন একমুঠো ভাত খেতে পায় অন্যদিন না খেয়ে থাকতে হয়। ৩০ থেকে ৩৫ বছরে কারো মায়ার চোখ লাগেনি রাশেদার উপরে এলাকা সূত্রে জানা যায় প্রতিবন্ধী রাশেদা মানুষের দ্বারে চেয়ে কোনরকম সংসার চলে খেয়ে না খেয়ে স্বামীর ১ চালের ঘরটি থেকে কোথাও যেতে চায়না। আর ইশারায় একটি কথা বলে সরকার গরিবের জন্য অনেক কিছু দিয়েছে আমরা কিছু দেখি নাই পাই নাই।

খাতা কলম দিয়ে ইশারায় বলে আমি সরকারের কাছে কারো মাধ্যমে একটি পত্র লিখব তারপর জানিয়ে দেবো আমরা কেমন আছি । আমি প্রতিবন্ধী হিসেবে মেম্বার চেয়ারম্যানের কাছে একাধিকবার গিয়েছিলাম তাদের কাছ থেকে কোনো সার্বিক সহযোগিতা পায়নি। এ বিষয়ে বাকেরগঞ্জ থানা নির্বাহী কর্মকর্তা মাধবী রায় কে জানতে চাইলে তিনি বলেন এটা আমাদের জানা ছিলনা আমি বিষয়টি ভালোভাবে দেখব।