জুস কারখানার আগুনে পুড়ে যাওয়া শ্রমিকরা বেতন পেলো – মানবতারকণ্ঠ

জুস কারখানার আগুনে পুড়ে যাওয়া শ্রমিকরা বেতন পেলো  – মানবতারকণ্ঠ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:
নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে আগুনে পুড়ে যাওয়া সেজান জুস কারখানার শ্রমিকরা বেতন পেয়েছেন। মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) বিকালে তাদের বেতন পরিশোধ শুরু হয়। সংশ্লিষ্টরা জানান, দুপুর থেকে বেতন দেওয়া শুরু হওয়ার কথা ছিল। তবে বিএনপির প্রতিনিধি দল ঘটনাস্থল পরির্দশন করায় দেরি হয়।

সজিব গ্রুপের প্রধান হিসাবরক্ষণ কর্মকার্তা মুরাদ হাসান বলেন, আজ সজিব গ্রুপের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সেজান জুস কারখানায় কর্মরত শ্রমিকদের বেতন দেওয়া হয়। এরআগে, গতকাল শ্রমিকরা যেসব জায়গায় বসবাস করেন, সেখানে মাইকিং করে এ তথ্য জানানো হয়। তিনি বলেন, এই গ্রুপে প্রায় তিন হাজারের বেশি শ্রমিক কাজ করছেন। ঈদের আগে সবাইকে বেতন দেওয়া হবে।

বেতন নিতে আসা অধিকাংশ শ্রমিকের বয়স ১২ থেকে ১৬ বা ১৭ বছরের মধ্যে ছিল। বেতন নিতে আসা শ্রমিক আমেনা আক্তার, সোনিয়া, রুবিসহ কয়েকজন জানান, তাদের প্রত্যেকের বয়স ১৩ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে।

নারী শ্রমিক রুবি বলেন, আমি জুস কারখানার ললিপপ বিভাগে কাজ করতাম। আমি কারিগরের সহকারী হিসেবে কাজ করি। মাসিক বেতন ওভারটাইমসহ তিনি সাত হাজার ৩০০ টাকা পান বলে জানান। অগ্নিকাণ্ডের সময় তিনি স্টোর রুমে কাজ করছিলেন।

কথা হয় ১৪ বছরের শ্রমিক নাজনিনের সঙ্গে। তিনি বলেন, জুস কারখানার তৃতীয় তলার হিট মেশিন সেকশনে কাজ করতাম। প্রতিদিন নিয়মিত আট ঘণ্টা ডিউটির বাইরে কমপক্ষে চার ঘণ্টা ওভারটাইম করতে হয়। কিন্তু ওভারটাইমের টাকা মাসের শেষে বেতনের সঙ্গে না দিয়ে আটকে রাখা হয় বলে অভিযোগ করেন তিনি।