বাস সুপারভাইজারের মাদক মামলায় মৃত্যুদণ্ড

বাস সুপারভাইজারের মাদক মামলায় মৃত্যুদণ্ড

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:
গাইবান্ধায় মাদক মামলায় পারভেজ মিয়া (৩১) নামের এক বাস সুপারভাইজারকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া এ মামলার অপর তিন আসামি বেকসুর খালাস পেয়েছেন।
মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) দুপুর ১২টার দিকে গাইবান্ধা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সিনিয়র বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিক এই রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির উপস্থিতিতে রায় ঘোষণা করেন বিচারক।

পারভেজ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ধর্মপুর দিলদার পাড়া গ্রামের শামীম আলমের ছেলে। তিনি সম্যরাজা পরিবহন-১ বাসের সুপারভাইজার ছিলেন। মামলায় খাসালপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- আফাজ উদ্দিন, দুদু মিয়া ও সাইদুল ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিউকিটর (পিপি) ফারুক আহম্মেদ প্রিন্স বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে তিনি জানান, ২০১৮ সালের ১ নভেম্বর গোবিন্দগঞ্জের বাগদা বাজার এলাকায় সম্যরাজা পরিবহন নামে একটি লোকাল বাসে ৪৫০ গ্রাম হেরোইনসহ র‌্যাবের হাতে আটক হয় পারভেজ মিয়া। তার দেওয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে আরও তিন জনকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় র‌্যাবের পক্ষ থেকে গোবিন্দগঞ্জ থানায় চার জনকে আসামি করে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়। মামলার তদন্ত শেষে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।
ফারুক আহম্মেদ আরও জানান, আদালতে মামলার দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বিচারক রায় ঘোষণার দিন ধার্য করেন। আদালতে আসামিদের উপস্থিতিতে বিচারক রায় ঘোষণা করেন। এতে আসামি পারভেজকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশসহ তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া এ মামলার অপর তিন আসামির কাছে মাদকদ্রব্য না পাওয়ায় এবং তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় খালাস দেওয়া হয়েছে।
এ মামলায় আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন আবু আলা মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান রিপু। আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আসামির পক্ষের আপিলের কথা জানিয়েছেন তিনি।