দুর্গাপাশা ইউনিয়নে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি দূর্ভোগে সাধারণ জনগণ

দুর্গাপাশা ইউনিয়নে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি দূর্ভোগে সাধারণ জনগণ

বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি:
বরিশাল বাকেরগঞ্জ উপজেলার ৫ নং দুর্গাপাশা ইউনিয়নের প্রাণকেন্দ্র হাজার বছরের ঐতিহাসিক গোবিন্দপুর বাজারও ডি জি এল মাধ্যমিক বিদ্যালয়। এখানে রয়েছে ব্যাংক-বীমা স্কুল-মাদ্রাসা হাজার হাজার সাধারণ মানুষের সমাগম স্কুল কলেজ মাদ্রাসায় পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রী শিশুদের আসা যাওয়া। ইছাপুরা ছোট চৌরাস্তা থেকে গোবিন্দপুর কৃষি ব্যাংক হয়ে বাজারের মধ্য দিয়ে সেনেরহাট পর্যন্ত রাস্তাটির চলাচল ও খানাখন্দের কারণে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

হাজী বাড়ি জামে মসজিদ থেকে তরুণ কান্তি বাবুর বাড়ি পর্যন্ত পঞ্চম আলী নাইয়া বাড়ী হইতে গোবিন্দপুর দাখিল মাদ্রাসা ভায়া গাজী বাড়ী পর্যন্ত রাস্তাটির জনদুর্ভোগ। সেনের হাট থেকে দুর্গাপাশা ইউনিয়ন পরিষদ পর্যন্ত রাস্তাটি বেহাল অবস্থা।পাটকাঠি দাখিল মাদ্রাসা হইতে মধ্য জিরাইল আজিজিয়া ফাজিল মাদ্রাসা হয়ে মরহুম আজিজ শিকদারের বাড়ি পর্যন্ত রাস্তাটি মানুষে মরণ ফাঁদ হয়ে পড়েছে হেঁটে চলা দূরের কথা দুর্গাপাশা ইউনিয়নের সাধারণ জনগণসহ অটো,রিক্সা,ভ্যান,গাড়ি যানবাহন রাক্ষসী রাস্তা দিয়ে চলাচল করার উপায় নেই।

অসুস্থ রোগীদের নিয়ে অভিবাবকরা রাস্তায় দুর্ভোগে পরে। জিরাইল মান্নান হাওলাদারের বাড়ী হইতে নতুন বাজার থেকে বারওয়ানি ছালাম মেম্বারের বাড়ি পর্যন্ত এবং ইউনিয়নের সকল রাস্তা মরণফাঁদ রাস্তাগুলোতে গাড়িঘোড়ায় প্রতিদিন সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে থাকে।
নাজেহাল সড়কটি দিয়ে স্কুল কলেজ মাদ্রাসার ব্যাংক-বীমা বিদ্যুৎ কেন্দ্র হাজারো গ্রাহক মানুষের যাতায়াত করে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্বাস গ্রামকে শহর করা। দুর্গাপাশা ইউনিয়নের মানচিত্র ও উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত সরজমিনে গিয়ে জানা যায় সকল রাস্তা বাজার ঘাট মুসলমানদের ধর্মপ্রাণ কেন্দ্র মসজিদ গুলো নতুন করে সংস্কার করার দাবি সাধারণ মানুষের।

বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অভিভাবক সাংবাদিকদের বলেন আমাদের স্কুল খোলা থাকাকালীন ছাত্র-ছাত্রীরা আসা-যাওয়ায় অনেক ব্যাঘাতও দুর্ঘটনা ঘটে আরো জানান আমাদের ইউনিয়নে কোন হাসপাতাল ও সুচিকিৎসার ব্যবস্থা নেই। এ বিষয় জানতে চাইলে এলাকার সাধারণ মানুষ অনেকেই বলছেন আবার কেউ ভয়েতে মুখ খুলতে রাজি হয়নি বিভিন্ন রাস্তার প্রকল্প টিআর, কাবিখা,কাভিটা,এডিবি, এলজিএসপি সহ, হতদরিদ্রের ৪০ দিনের কর্মসূচির স্থানীয় জনপ্রতিনিধি মাস্টার রোলের টাকা জাল টিপ সই দিয়ে আত্মসাৎ করার অভিযোগ রয়েছে। জেলা ও উপজেলা কর্মকর্তার বরাবর অভিযোগ করলে অভিযোগ তদন্ত সাপেক্ষে সত্যতা প্রকাশ পায়।

বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা উত্তোলন স্থগিত করে দেয়। সরকারি লক্ষ লক্ষ টাকা কৃষি ব্যাংক গোবিন্দপুর শাখা রিসিভ এর মাধ্যমে সরকারি কোষাগারে ফেরত দিতে হয় । অনিয়ম-দুর্নীতির বিষয় এখন পর্যন্ত কোন আইনগত ব্যবস্থা নেয়নি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। ইনসেটে টাকা রিসিভ দেওয়া হল। এতে এলাকার সাধারন জনগনের ক্ষতিগ্রস্ত ও ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়েছে। এলাকাবাসী দাবি জেলা-উপজেলার নেতাকর্মীদের কাছে এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে পুনরায় রাস্তা সংস্কার সহ সকল সরকারি দপ্তরের আইনি সহযোগিতা কামনা করেছেন।

বরাদ্দকৃত টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাধবী রায় বলেন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ পেলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব। এমপি নাসরিন জাহান রত্না বলেন উপজেলা থেকে ইউনিয়নে বিভিন্ন প্রকল্পের বরাদ্দ দেওয়া হয়ে থাকে ।

বাকেরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুল আলম চুন্নু ও সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন ডাকুয়া বলেন ইউনিয়নের কোন চেয়ারম্যান কিংবা কোনো নেতাকর্মী অনিয়ম-দুর্নীতি দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নিব। শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড এবং শিক্ষকদের মেধাবী বিনয়ী হতে হয় প্রতিষ্ঠানের যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো হলে শিক্ষার মান ভালো হয়।

সূত্র: সোশ্যাল মিডিয়া