দূর্গাপাশা ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হানিফ তালুকদার ছাড়া বিকল্প নাই। মানবতারকণ্ঠ

দূর্গাপাশা ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হানিফ তালুকদার ছাড়া বিকল্প নাই। মানবতারকণ্ঠ

বাকেরগঞ্জ(বরিশাল)প্রতিনিধি:
আসছে দূর্গাপাশা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এতে ভোটাধিকার প্রয়োগ,ন্যায় বিচার, সুষম বণ্টন স্লোগানে নিরলস পরিশ্রম করে গনসংযোগ ও জনগনের সাথে দেখা ও নানা কর্মসূচির মাধ্যমে মাঠ চষে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব সরগম করে রেখেছেন চেয়ারম্যান মনোনয়ন প্রত্যাশী নৌকার কান্ডারী যার হাতে গড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ছাত্রলীগ,যুবলীগ,স্বেচ্ছাসেবক লীগ, এই ত্যাগী নেতা মামলা হামলা ত্যাগ তিতিক্ষা নির্যাতন-নিপিরণের মধ্য দিয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগকে শক্ত হাতে ধরে রেখেছেন হানিফ তালুকদার ।সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, আলাউদ্দিন তালুকদার তৎকালীন সময় ১৯৭২ সালে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ছিলেন৭ নং ওয়ার্ডে বারবার ইউপি সদস্য সাবেক মেম্বার ছিলেন তারি সুযোগ্য পুত্র হানিফ তালুকদার প্রচার প্রচারণায় ও রাজনীতিতে এগিয়ে রয়েছেন নৌকার কান্ডারী, রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব, সমাজ সেবক, মানবতাবাদী ও শ্রমিক বান্ধাব । তিনি দিন রাত বিরামহীন ব্যাপক প্রচার প্রচারনা ও গনসংযোগ করে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ছুটছেন। তিনি যুগযুগ ধরে সাধারন মানুষ ও দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে সম্পৃক্ত থেকে সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রক্ষা করে সুখ দুঃখে তাদের পাশে থেকে সকলের মনজয় করে আছেন। হানিফ তালুকদার দূর্গাপাশা ইউনিয়ন আওয়ামী লাগের সাধারণ সম্পাদকের পদে রয়েছেন এছাড়াও তিনি মসজিদ,মাদ্রাসা স্কুল হাট-বাজার থেকে শুরু করে বিভিন্ন সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ সভাপতি পদে রয়েছেন । এক সময় তিনি ছিলেন তুখোড় ছাত্রনেতা ও সৈয়দ হাতেম আলী কলেজ ছাত্র সংসদের গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন। ব্যক্তিগত যোগ্যতা ও দক্ষতায় উপজেলা ও জেলায় মহানগর দলের সহযোগী সংগঠন ও অঙ্গসংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের সাথে সু-সম্পর্ক বজায় রেখে সামাজিক কাজ করে যাচ্ছেন। দূর্গাপাশা ইউনিয়নের সাধারন ভোটাররা জানান,ইউনিয়নে হানিফ ভাই ছাড়া বিকল্প নেই এবং ইউনিয়নের বাহিরেও হানিফ ভাই জনপ্রিয়।যুগের পর যুগ এই ইউনিয়ন বাসির পাশে থেকেছেন প্রতিটা ঘরের মানুষ হানিফ ভাইকে চেনে, তিনি মানবতারকন্ঠকে বলেন আমি আপনাদেরই সন্তান, সুখে-দুখে আপনাদের পাশে ছিলাম, আছি এবং ভবিষ্যতে থাকবো ইনশাআল্লাহ।