আলোচিত সাংবাদিক রুবেল হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ২। মানবতারকন্ঠ

আলোচিত সাংবাদিক রুবেল হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ২। মানবতারকন্ঠ

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি।
কুষ্টিয়ায় আলোচিত সাংবাদিক হাসিবুর রহমান রুবেল হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে কাজী সোহান শরিফ (৪০) ও খন্দকার আশিকুর রহমান জুয়েল (৩৫) নামে দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছেন র‌্যাব-১২ এর কুষ্টিয়া ক্যাম্পের সদস্যরা। গতকাল শুক্রবার (১৫ জুলাই) দিবাগত রাত আনুমানিক সাড়ে ৩টার দিকে কুষ্টিয়ার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

র‌্যাব-১২ এর কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার মোহাম্মদ ইলিয়াস খান ঢাকা পোস্টকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- কুষ্টিয়া শহরের থানাপাড়া এলাকার মৃত হামিদ মোল্লার ছেলে কাজী সোহান শরিফ ও একই এলাকার মৃত খন্দকার হারুন উর রশিদের ছেলে খন্দকার আশিকুর রহমান জুয়েল। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পাবনা নৌ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে র‍্যাব।

জানা গেছে, নিখোঁজের পাঁচ দিন পরে গত ৭ জুলাই দুপুর দেড়টার দিকে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার কুমারখালী পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের তেবাড়িয়া গ্রামের গোলাম কিবরিয়া ব্রিজের (নির্মাণাধীন) নিচে গড়াই নদী থেকে হাসিবুর রহমান রুবেলের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরদিন শুক্রবার (৮ জুলাই) ময়নাতদন্ত শেষে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পৌর গোরস্থানে জানাজার পর রুবেলের দাফন সম্পন্ন হয়।

এর আগে ৩ জুলাই রাত ৯টার দিকে কুষ্টিয়া শহরের সিঙ্গার মোড়ে হাসিবুর রহমান রুবেল তার পত্রিকা অফিসে অবস্থান করছিলেন। এ সময় মোবাইলে একটি কল এলে তিনি অফিস পিয়নকে ‘বাইরে থেকে আসছি’ বলে বের হন। এরপর থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যাচ্ছিল। পরে নিখোঁজের পাঁচ দিন পরে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় গত ৮ জুলাই শুক্রবার রাতে কুমারখালী থানায় রুবেলের চাচা মিজানুর রহমান মেজর বাদী হয়ে অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা করেন।

নিহত হাসিবুর রহমান রুবেল কুষ্টিয়া জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক, স্থানীয় দৈনিক কুষ্টিয়ার খবর পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও দৈনিক আমাদের নতুন সময় পত্রিকার কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি ছিলেন। তিনি কুষ্টিয়া শহরের হাউজিং এ ব্লক এলাকার মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে।